হোমো স্যাপিয়েন্স রাফান আহমেদ pdf download বাংলা অনুবাদ
Skip to content
Shahriar Alam Rakib Blogs Feature Image
Home » হোমো স্যাপিয়েন্স রাফান আহমেদ pdf download বাংলা অনুবাদ

হোমো স্যাপিয়েন্স রাফান আহমেদ pdf download বাংলা অনুবাদ

এটা ‘প্রথাগত’ কোন রিভিউ নয়, পড়তে শুরু করা একটি বই নিয়ে প্রতিক্রিয়া৷

নামঃ হোমো স্যাপিয়েন্স | RETELLING OUR STORY

বইটা আলতো ভাবে ধরতেই বুকমার্ক গুঁজে দেয়া একটি পৃষ্ঠা নিজেকে মেলে ধরলো পাঠক-এই আমার সামনে। ফিরে গেলাম কৈশোরে। ঠিক যেন গলির মাথা থেকে কেনা ছোটবেলার ঈদকার্ড।
বইটা নিরেট বিজ্ঞানের, অথচ লেখক এই পৃষ্ঠায় কবিতা লেখার কোশেশ চালালেন নাকি কোন ইঙ্গিত দিলেন বুঝতে পারলাম না। আর ইলাস্ট্রেশন? ঐ যে ঈদ কার্ড। কুঞ্চিত ভ্রু নিয়ে চলে গেলাম পরের পাতায়।

শিরোনামঃ অভিমত।
কি রে ভাই! এইটা কি কোন বই নাকি স্বরণিকা বা কোন প্রতিষ্ঠানের বার্ষিক রিপোর্ট? পুরো চার-চারটা পৃষ্ঠা জুড়ে ১৩ জনের প্রলাপ! মেজাজ শরীফ বিপদ সীমার উপর প্রবাহিত হওয়া শুরু হলো।
বাকি সব অপ্রাসঙ্গিক বাকোয়াজি এড়িয়ে যাওয়ার জন্য সরাসরি চলে এলাম মূল অংশে।

“সন্ধ্যা-সময়ে মাগরিবের সালাত পড়ে হাঁটতে বের হলাম। ঝিরিঝিরি হাওয়া চারপাশে গুনগুন করে বয়ে চলছে; আলতো করে কপোলকে ছুঁয়ে…
অবাক হয়ে বইটা উল্টেপাল্টে দেখলাম। বইমেলার ব্যস্ততায় কোন কোবতের বই চলে আসলো না তো? নাহ৷ ঠিকই আছে।
আবার পড়া শুরু করলাম। হায়! এই *লের আলাপ দেখি শেষই হচ্ছে না। উল্টো আরো কবিতা শুরু হলো।
পাঠক, সংযুক্ত ছবিতে এই হচ্ছে বইটির প্রথম দুই পৃষ্ঠা। বিরাট এক ছবি আর দুটো কবিতা আর কিছু *** আলাপ।
পাতা উল্টে চলে গেলাম একেবারে শেষে। কী ভাবছেন, চমৎকার কোন বার্তা সহ মুগ্ধকর এক সমাপ্তি?
না, যা ভেবেছিলাম তা-ই। বইটা শেষও হয়েছে একটা কবিতা এবং অপ্রাসঙ্গিক কিছু *** আলাপের মাধ্যমে।

অথচ মার্কেটিং হচ্ছিল এটা নাকি ইউভাল নোয়া হারিরির ‘স্যাপিয়েন্স’ এর কাউন্টারে লেখা। হারিরির বইটাও সংগ্রহ করেছি। অস্বীকার করব না, মনে মনে ভেবেছিলাম, ধর্মতত্তের বিপরীতে যায় এমন একটি বই পড়ার আগে ধর্মের পক্ষের আলাপটা জানা থাকলে মন্দ হয় না। ( বিষয়টার উল্লেখ এই কারণে যে, অনেক পাঠকই এই চিন্তা রেখে বইটি কিনে থাকতে পারেন। এইসব *লছাল না থাকলে কথাটা বলতে হতো না) যদিও বিশ্বাসে আল্লাহ দয়া করে আমাকে এতো দূর্বল রাখেননি, আলহামদুলিল্লাহ।

বইটির (অ)লেখক ডা. রাফান আহমেদ একজন চিকিৎসক হতে পারেন। কিন্তু লেখক না। বই লেখা তো দূরের কথা, ভাল একটা ব্লগ-আর্টিকেল বা ফেইসবুক পোস্ট লেখার মত যোগ্যতাও তার নেই।
উচিৎ ছিল একজন লেখককে তথ্য দিয়ে সহায়তা করে তাকে দিয়েই বইটা লেখানো। এটা করতে না পারলে অন্তত একজন সহলেখক নিয়ে নেয়া৷

একদিন তিনি বিশ্বসেরা চিকিৎসক হতে পারেন, নোবেল পেতে পারেন, তবু ‘হোমো স্যাপিয়েন্স’ বইটা একটা আবর্জনা হিসাবেই গণ্য হবে।

এই বইয়ের সবচেয়ে বিশ্রি অংশ হলো এর পৃষ্ঠাসজ্জা ও ইলাস্ট্রেশন। কাজটা কে করেছেন তার নাম দেয়া আছে, তবে আমি উল্লেখ করছি না। অক্ষর-পরিচয় না থাকা শিশুদের বইয়ের মত জমকালো ইলাস্ট্রেশন, কিন্তু সৌন্দর্যের দিক থেকে বমির উদ্রেক করার মত। কিছুক্ষণ তাকিয়ে থাকলে আপনার চোখ টাটাবে, মাথাব্যাথা শুরু হবে৷ রুচিবিকৃতির এক উৎকট নিদর্শন বইটি। এক্ষেত্রেও কোন প্রফেশনাল শিল্পীর সহায়তা নিতে অনুরোধ থাকবে প্রকাশকের প্রতি।
অনেক আগে কে যেন বলেছিলেন, কিছু বই পড়লে মনে হয় লেখককে গাছের প্রতিটা ডালপালা ধরে মাফ চাওয়ানো উচিৎ। এই আবর্জনাটি হাতে নিয়ে এই অনুভুতিই হয়েছিল আমার।

যারা বইটা ইতোমধ্যেই কিনে ফেলেছেন, ডা. রাফান আহমেদের উচিৎ এইসব অহেতুক অপ্রাসঙ্গিক অংশ বাদ দিয়ে বইটার মূল কিছু তথ্য আলাদা ভাবে কম্পাইল করে তাদের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া। এটা তার নৈতিক দায়িত্ব। নইলে পাঠকের সাথে এটা তার ‘প্রতারণা’ হবে বলে আমার মনে হচ্ছে।

জীবনটা ছোট। তাই সময়ের সাথে দৌড়ে যে কয়টা ভাল বই পড়ে বিদায় নেয়া যায় তা-ই প্রাপ্তি।

বইঃ হোমো স্যাপিয়েন্স | RETELLING OUR STORY
লেখকঃ ডা. রাফান আহমেদ
প্রকাশনঃ সমর্পণ
পৃষ্ঠা সংখ্যাঃ ১৮৪ ( ফোর কালার। একই পৃষ্ঠায় একাধিক রঙের উদ্ভট ব্যাকাত্যাড়া ফন্ট। প্রচুর ছবি, কবিতার ব্যবহার চোখে পড়েছে।)
মুদ্রিত মূল্যঃ ৩৯২

Read More: Top 5 Freelancing Skills to Learn for Beginners

For Bengali Book Review Please Visit: Boier Feriwala

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x